কিভাবে ফোন কে সিস্টেম আপডেট করবেন।

প্রিয় পাঠক বন্ধুরা, আশা করি আপনার সবাই ভালো আছেন। বরাবর এর মতোই আ‌মি আপনা‌দের মা‌ঝে নতুন আ‌রেক‌টি আ‌র্ট‌ি‌কেল নি‌য়ে আসলাম। আজ‌কের এই আর্ট‌ি‌কেলটি‌তে আ‌লোচনা করা হ‌য়ে‌ছে  কিভা‌বে আপনারারা আপনা‌দের মোবাইল ফোন সি‌স্টেম আপ‌ডেট কর‌বেন। যারা‌ ফোন সি‌স্টেম আপ‌ডেট কর‌তে পা‌রেন না তারা এই আ‌র্টি‌কেল‌টি শেষ পর্যন্ত পড়‌তে থাকুন।

কিভাবে ফোন কে সিস্টেম আপডেট করবেন।

মোবাইল‌ সি‌স্টেম আপ‌ডেট কর‌লে কি লাভ?

বর্তমান যুগকে মানুষ মোবাইল এর যুগ বলে থাকি। কারণ এখন ছোট বড় সবার হাতে হাতে স্মার্ট ফোন রয়েছে। সবার হাতে স্মার্ট ফোন থাকলে ও আমরা স্মার্ট  এর ব্যবহার সম্পর্কে সকল কিছু জানিনা। অনেকে রয়েছে যারা ফোন এর সিস্টেম আপডেট সম্পর্কে কিছু যানেনা। যারা কিভাবে  ফোন সিস্টেম আপডেট করে এটা যানেন না তারা আজকের এই আর্টি কেলটি শেষ পর্যন্ত পড়তে থাকুন। 

আমরা যখন নতুন ফোন ক্রয় করি। কিছুদিন চালানোর পর ফোনটি সিস্টেম আপডেট চায় । আমরা অনেকেই যানিনা। মোবাইল সিস্টেম আপডেট কেনো চায়। এবং আপডেট দিলে কি হয়। মোবাইল সিস্টেম আপডেট করালে মোবাইল এর কোনো ক্ষতি হবে না। বরং মোবাইল আরো উন্নত হবে। মোটকথা মোবাইল সিস্টেম আপডেট দেওয়ার পর। মোবাইল এর যাবতীয় সমস্যার সমাধান হবে এবং মোবাইল আগের চেয়ে আরো দ্রুত কাজ করবে। আশা করি আপনার এটা বুঝতে পেরেছেন এখুন চলুন জেনে নেওয়া যাক মোবাইল সিস্টেম আপডেট দিলে কি কোনো ক্ষতি হয়।

মোবাইল সিস্টেম আপডেট দিলে কি কোনো ক্ষতি হয়?

উপরের অংশে জানতে পারলেন মোবাইল সিস্টেম আপডেট করলে কি লাভ হয়। এখুন আমরা জানবো। মোবাইল সিস্টেম আপডেট করলে মোবাইল এর কোনো ক্ষতি হবে কিনা। অনেকর মনে প্রশ্ন থেকে যায় যে, মোবাইল সিস্টেম আপডেট করলে মনে হয় মোবাইল এর ক্ষতি হয়? এই প্রশ্নের উত্তরে আমি আপনাদের বলবো। এই টা নিয়ে একবারে কোনো চিন্তা করার কারণ নেই। 

মোবাইল সিস্টেম আপডেট দিলে মোবাইল এর ক্ষতি না হয়ে বরং মোবাইল এর যে সমস্যাগুলো রয়েছে এই সমস্যাগুলোর সমাধান হয়ে যায়। কারণ মোবাইল সিস্টেম আপডেট আপডেট যেহেতু কোম্পানি থেকে আসে তাই চোখ বন্ধ  করে এটা করা যায়।  কোম্পানিগুলো বাজারে মোবাইল ছারার পর যখন মানুষ সেই মোবাইল গুলো চালানো শুরূ করে তখন মোবাইল কোম্পানি গুলো দেখে সেই মোবাইলে কোনো সমস্যা রয়েছে কিনা। যদি মোবাইলে কোনো রকম সমস্যা দেখতে পায় তখন এই সমস্যাগুলো সমাধান করার জন্য তারা গ্রাহকদের মোবাইল সিস্টেম আপডেট দিতে বলে। এবং গ্রাহকগণ মোবাইল সিস্টেম আপডেট দেওয়ার পর নতুন ফিচার দেখতে পায়। এবং পূর্বের সমস্যাগুলোর সমাধান পেয়ে যায়। তাই অবশ্যই সোবাইল সিস্টেম আপডেট করা প্রয়োজন।

মোবাইল সিমেস্টম আপডেট দেওয়ার পূর্বে কিছু শর্ত

আপনার মোবাইল সিস্টেম আপডেট দেওয়ার সময় ফোনে পর্যাপ্ত চার্জ থাকতে হবে। কারণ সিস্টেম আপডেট দিতে গেলে একটু সময় এর প্রয়োজন হয়। আর যদি আপডেট দিতে গিয়ে যদি আপনার ফোন বন্ধ হয়। তাহলে কিন্তু আপনি আপনার ফোন সহজে ওন করতে পারবেন না। তাই আপনার নিশ্চিত হয়ে নিবেন যে ফোনে পর্যাপ্ত চার্জ রয়েছে কিনা। 
যদি পর্যাপ্ত চার্জ থাকে তাহলে আপনি ফোন আপডেট দিবেন। আর এই আপডেট দেওয়ার জন্য আপনি ওয়াইফাই ব্যবহার করতে পারেন। কারণ ওয়াইফাই এর মাধ্যমে খুব সহজেই  ফোন আপডিট করা যায়।

মোবাইল সিস্টেম আপডেট দেওয়ার নিয়ম।

সুপ্রিয় পাঠক, আপনার মোবাইল সিস্টেম আপডেট সম্পর্কে অনেক কিছু জানতে পেরেছেন এখন এই অংশে আমরা জানবো যে কিভাবে এই কাঙ্খিত আপডেট দিতে হয়।তো চলুন জেনে নেওয়া যাক কিভাবে সেই আপডেট করার নিয়ম।
  • প্রথমে আপনি আপনার ফোনের সেটিংস এ চলে যাবেন।
  • এর পর নিচের দিকে স্ক্রল করে ‍সফটওয়্যার আপডেট নামে যে অপশন আছে সেইটাতে ক্লিক করবেন। আর অনেকের ফোনে এবাউট ফোন এই অপশনের ভিতরে অপশনটি পাবেন।
  • ডাউনলোড এবং ইনস্টল নামে যে অপশন রয়েছে সেটাতে প্রবেশ করূন। 
  • এখন আপনি ইনস্টল নাও এ ক্লিক করবেন।
  • এখন আপনার ফোনটি রেস্টাট নিয়ে নিবে। কিছুক্ষন সময় অপেক্ষা করতে হবে। এখানে একটা কথা বলে রাখা প্রয়োজন। যাদের ফোনে ডাটা বা ওয়াইফাই থাকবে না। তাদের ফোন প্রপার ভাবে আপডেট হবে না। 
  • ফোনটি চালু হওয়ার পর আপনার ফোনের পাসওয়ার্ড দিয়ে দিতে হবে। আপনার ফোনে আগে যেই পাসওয়ার্ড  দেওয়া ছিলো সেই পাসওয়ার্ড।
  • ফোনটি আনলক করার পর আপনাকে একটা নোটিফিকেশন দেখানো হবে। যে আপনার ফোনটি সিস্টেম আপডেট হয়ে গেছে।
আশা করি আপনারা এই ধাপগুলো বুঝতে পেরেছন। আপডেট দেওয়ার পর আপনি সেটিংস এ গিয়ে দেখবেন আপনার ফোনটিতে নতুন ফিচার যুক্ত হয়েছে। আর যে সমস্যাগুলো ছিল। সেটার সমাধান হয়ে গেছে। 
আরও জানুন,

শেষ কথাঃ

যেকোনো মোবাইল এর আপডেট চলে আসলে সেটাকে খুব দ্রুত আপডেট করে নেওয়া উচিত। কেননা মোবাইল আপডেট দিলে কি কি সুবিধা রয়েছে আপনিতো আর্টিকেলটিতে জানতেই পারলেন। তাই মোবাইল সিস্টেম আপডেট করতে আর অবহেলা করবেন না। 

আশা করি আজকের এই আর্টিকেলটি আপনাদের কাজে আসবে। আর্টিকেলটি আপনাদের ভালো লাগলে অবশ্যই একটি শেয়ার করার আবেদন জানাচ্ছি এবং এ রকম আরো আর্টিকেল পেতে আমাদের ওয়েবসাইটে নিয়মিত ভিজিট করূন। 
Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url