google.com, pub-8571279523475240, DIRECT, f08c47fec0942fa0 Freelancers IT | Learn More About Freelancing and Outsourcing

sfd

মোবাইলের যে কোন সিমে ব্যালেন্স ট্রান্সফার করুন মুহুর্তেই

আমরা সকলেই মোবাইল ফোন ব্যবহার করি । মোবাইলে কথা বলার জন্য সিম কার্ড খুবই ‍গুরুত্বপূর্ন। আর এই সিম কার্ড দিয়ে কথা বলতে গেলে সিমে টাকা থাকাটা জুরুরী। আমরা ফোনের টাকা বা ব্যালেন্স শেষ হয়ে গেলে রিচার্জের দোকানে যায়। অনেক সময় দেখা যায় আমাদের একটি সিমে টাকা থাকে কিন্তু অপর সিমে টাকা শেষ হয়ে যায়। তখন আমরা ওই সিমে রিচার্জ দেওয়ার জন্য দোকানে যায়। এটি অনেক সময় সাপেক্ষ এবং ঝামেলার। 




তাই আজকে আমরা দেখব! কী করে খুবই সহজেই আপনার যে কোন সিম থেকে অপর একটি সিমে ব্যালেন্স ট্রান্সফার করবেন। প্রথমেই বলে রাখা ভালো  এই সুবিধাটি শুধুমাত্র আপনি একই অপারেটরের সিমের ক্ষেত্রে ব্যবহার করতে পারবেন। অর্থাৎ জিপি টু জিপি,রবি টু রবি,বাংলালিংক টু বাংলালিংক

গ্রামীনফোন টু গ্রামীনফোন সিমে কী ভাবে ব্যালেন্স ট্রান্সফার করবেন..

প্রথমেই  আপনার মোবাইল ফোনের ডায়েল অপশন থেকে *১২১*১৫০০# ডায়েল করুন। এরপর এখান থেকে এক নম্বর অপশন অর্থাৎ রেজিস্ট্রেশন টি নির্বাচন করুন। 


এর পর আপনার মোবাইলে একটি মেসেজ আসবে যেখানে আপনার গোপন ৬ ডিজিটের একটি পাসওয়ার্ড দেওয়া হবে। এটি সংরক্ষন করুন। কারন পরবর্তীতে ব্যালেন্স ট্রান্সফারের সময় এটি ব্যবহার করতে হবে।

অন্য পোষ্ট পড়ুনঃ


এরপর পুনঃরায় আপনার মোবাইল ফোনের ডায়েল অপশন থেকে *১২১*১৫০০# ডায়েল করুন। এবার দ্বিতীয় অপশনটি অর্থাৎ ট্রান্সফার ব্যালেন্স নির্বাচন করুন এবং সেন্ড করুন।


এরপর আপনি যে নম্বরে ব্যালেন্স পাঠাতে বা ট্রান্সফার করতে চাচ্ছেন সেটি প্রদান করুন এবং সেন্ড করুন।



এখন আপনি কতো টাকা প্রদান বা ট্রান্সফার করতে চাচ্ছেন তা দিন। তবে এখানে প্রতিবারে সর্বনিম্ন ১০ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ১০০ পযন্ত ট্রান্সফার করতে পারবেন। তবে যতো খুশি ততো বার। টাকার পরিমান দেওয়ার পর সেন্ড অপশনে চাপ দিন।


এটি হলো চূড়ান্ত ধাপ। এখন রেজিস্ট্রেশনের সময় একটি মেসেজের মাধ্যমে আপনাকে যে ৬ সংখ্যার কোড বা পাসওয়ার্ড দেওয়া হয়েছিল সেটি এখানি দিন এবং সেন্ড অপশনে চাপ দিন। এখন দেখুন আপনার কাঙ্খিত নাম্বারে ব্যালেন্স চলে গেছে। যা আপনাকে একটি মেসেজ বা বার্তার মাধ্যমে জানানো হয়েছে। এর ব্যালেন্স দেখার প্রক্রিয়া সাধারন  ব্যালেন্স দেখার মতোই অর্থাৎ *৫৬৬#



রবি থেকে রবি সিমে কী ভাবে ব্যালেন্স ট্রান্সফার করবেন..

প্রথমেই একইভাবে আগের মতো আপনাকে আপনার মোবাইল ফোনের ডায়েল অপশন থেকে *১৪০*৬*২# ডায়েল করতে হবে। এরপর এখান থেকে সরাসরি আপনি অপর সিমে কতো টাকা ব্যালেন্স পাঠাতে বা ট্রান্সফার করতে চাচ্ছেন তা দিয়ে সেন্ড বাটনে চাপ দিন।

এখন এই ধাপে  আপনি যে সিমে ব্যালেন্স ট্রান্সফার করতে চাচ্ছেন সেটির নাম্বার দিন এবং সেন্ড বাটনে চাপ দিন। এখন একটি মেসেজ বা বার্তার মাধ্যমে ব্যালেন্স ট্রান্সফার হয়েছে কী না তা জানানো হবে। এটিরও ব্যালেন্স দেখার প্রক্রিয়া সাধারন  ব্যালেন্স দেখার মতোই অর্থাৎ *২২২# 

এখানে বলে রাখা ভালো রবিতে ব্যালেন্স ট্রান্সফারের জন্য আলাদা করে কোন রেজিস্ট্রেশনের দরকার হয় না বা এখানে কোন পাসওয়ার্ডের ব্যবহার  লাগে না।

বাংলালিংক থেকে বাংলালিংক সিমে কী ভাবে ব্যালেন্স ট্রান্সফার করবেন..

প্রথমেই একইভাবে আগের মতো আপনাকে আপনার মোবাইল ফোনের ডায়েল অপশন থেকে *১০০০# ডায়েল করতে হবে। এরপর এখান থেকে নিরাপত্তার জন্য একটি পিন কোড তৈরী করতে হবে যা আপনি পরবর্তীতে ব্যালেন্স ট্রান্সফারের সময় ব্যববহার করবেন। এর জন্য গেট পিন অপশন অর্থাৎ ১ চাপুন এবং সেন্ড বাটনে চাপ দিন।

এখন আপনাকে একটি ৪ ডিজিটের একটি পিন কোড দেওয়া হবে যা সংরক্ষন করতে হবে পরবর্তীতে ব্যবহারের জন্য। ওকে বাটনে চাপ দিয়ে আবারও আপনার মোবাইল ফোনের ডায়েল অপশন থেকে *১০০০# ডায়েল করতে হবে। এবার ব্যালেন্স ট্রান্সফারের জন্য ১ ডায়েল করুন এবং সেন্ড করুন।


এখন রেজিস্ট্রেশনের সময় একটি মেসেজের মাধ্যমে আপনাকে যে ৪ সংখ্যার কোড বা পাসওয়ার্ড দেওয়া হয়েছিল সেটি এখানে দিন এবং সেন্ড অপশনে চাপ দিন। 


এবার  এই ধাপে  আপনি যে সিমে ব্যালেন্স ট্রান্সফার করতে চাচ্ছেন সেটির নাম্বার দিন এবং সেন্ড বাটনে চাপ দিন।



এখন আপনি কতো টাকা প্রদান বা ট্রান্সফার করতে চাচ্ছেন তা দিন। তবে এখানে প্রতিবারে সর্বনিম্ন ১০ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ১০০ পযন্ত ট্রান্সফার করতে পারবেন। তবে যতো খুশি ততো বার। টাকার পরিমান দেওয়ার পর সেন্ড অপশনে চাপ দিন।


এখন একটি মেসেজ বা বার্তার মাধ্যমে ব্যালেন্স ট্রান্সফার হয়েছে কী না তা জানানো হবে। এটিরও ব্যালেন্স দেখার প্রক্রিয়া সাধারন  ব্যালেন্স দেখার মতোই অর্থাৎ *১২৪# 


এভাবে খুব সহজেই আপনি এই তিনটি অপারেটরে ব্যালেন্স ট্রান্সফার করতে পারবেন। 


Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url

as