google.com, pub-8571279523475240, DIRECT, f08c47fec0942fa0 Freelancers IT | Learn More About Freelancing and Outsourcing

sfd

কি কি কারণে ফাইভার প্রোফাইল সাসপেন্ড বা ডিস্যাবল হয়?

প্রায় নতুন ফ্রিল্যান্সার রা ফাইভার মার্কেটপ্লেসের নিয়ম না জেনেই কাজ শুরু করে। ফলে তারা বিভিন্ন রকম ভুল করে ফেলে। ফাইভার এমন একটি মার্কেটপ্লেস যে তারা সকল বিষয় অনেক নিখুঁতভাবে পর্যবেক্ষণ করে দেখে। কোন ফ্রিল্যান্সারের কার্যক্রমে ভুল হলে বা সন্দেহ জনক হলেই ফাইভার তাকে সাসপেন্ড বা ডিস্যাবল করে দেয়।

তাই এই পোস্টে আলোচনা করব ফাইবার মার্কেটপ্লেসের সকল নিয়ম সম্পর্কে।
আরও জানুনঃ

যেসব কারণে ফাইভার প্রোফাইল সাসপেন্ড বা ডিস্যাবল হয়

১. ব্যাক্তিগত যোগাযোগ মাধ্যমের কোন তথ্য শেয়ার করলে ফাইবার এ্যাকাউন্ট সাসপেন্ড হয়। যেমনঃ Email Address, Skype ID, Phone Number ইত্যাদি।

অনেকেই হয়ত মনে করেন Image বা Text File এর মাধ্যমে শেয়ার করলে ফাইভার বুঝতে পারবে না। কিন্তু এই ধারণা ভূল। ফাইভারে আসলে কোন মেসেজই প্রাইভেট নয়। যে কোন সময় আপনার মেসেজ বক্স ফাইভার পর্যবেক্ষন টিম খতিয়ে দেখতে পারে। আর দেখলেই তারা জানতে পারবে। তাই সাবধান হউন।

এমনকি বায়ার তার ব্যাক্তিগত যোগাযোগ মাধ্যমের কোন তথ্য শেয়ার করলে তা গ্রহণ করলেও আপনার এ্যাকাউন্ট সাসপেন্ড হতে পারে।

২. ফাইভারের বাইরে কোন লেনদেন করলে বা করার চেষ্টা করলে। যেমন কোন বায়ার কে ফাইবারের বাইরে পেমেন্ট করতে বললে বা বায়ার দিতে চাইলে  তা গ্রহণ করলে আপনার  এ্যাকাউন্ট সাসপেন্ড হয়ে যাবে।

৩. বায়ারদের কে অপ্রয়োজনীয় মেসেজ দিলে বা স্পামিং করলে। অথবা অতিরিক্ত কাস্টম অফার পাঠালে এবং বায়ারদের কাছ থেকে রিপোর্ট পেলে আপনি সাসপ্যান্ড হতে পারেন।

৪. নতুন সেলার রা অনেক সময় Fake Review সার্ভিস প্রদান সংক্রান্ত গিগ অফার করে। আবার অনেকে নিজের প্রোফাইলের জন্য Fake Review কিনে। কিন্তু এসব ধরতে পারলে আপনার প্রোফাইল সাসপ্যান্ড করে দিবে।

৫. কোন বায়ার বা সেলার কে অপমানজনক কথা বললে। যেমন ধর্ম, বর্ণ বা জাতি ইত্যাদি বিষয়ে

৬. অন্যের কপিরাইটকৃত কোন কিছু ব্যবহার করে ধরা পরলে।

৭. অন্যে গিগ এর কোন কিছু যেমনঃ Title, Description, Banner A-Z কপি করলে।

৮. পর্নোগ্রাফি বা অশ্লীল কোন সার্ভিস প্রদান করলে।

৯. বেশি নেগেটিভ রিভিউ পেলে বা আপনার প্রোফাইলের ব্যাপারে অধিক রিপোর্ট পেলে।

১০. একই পেমেন্ট মেথড একাধিক ফাইবার প্রোফাইলে যুক্ত করলে।
ধরুন আপনার কোন পেওয়নার বা পেপাল এ্যাকাউন্ট নাই । এখন আপনি আপনার বন্ধুর পেওয়নার বা পেপাল এ্যাকাউন্ট যুক্ত করেছেন। যা পূর্বে আপনার বন্দূর ফাইবার প্রোফাইলে যুক্ত ছিল। তাহলে দুইজনের প্রোফাইলই সাসপেন্ড হবে।

১১. নিজের সার্ভিস প্রমোট করার জন্য জব পোস্ট করলে। অনেক নতুন সেলার রা তাদর গিগ এর প্রোমট করার জন্য বায়ার হিসেবে জব পোস্ট করে। যা শুধু বায়ারদের জন্য , কোন সেলাররের জন্য এই সুবিধাটি নয়। যদি কোন সেলার বায়ার হয়ে জব পোস্ট করে গিগ প্রোমটের চেষ্টা করে ধরা পরলে সাসপেন্ড হবে।

১২. শেয়ার আইপি ব্যবহার করা অবস্থায় ঐ আইপি থেকে কেউ বাজে কাজ বা খারাপ কাজ করলে ফাইভার প্রোফাইল সাসপেন্ড হতে পারে।

১৩. একই ব্যক্তির তথ্য দিয়ে একাধিক ফাইভার এ্যাকাউন্ট করলে।

আরো গুরুত্বপূর্ণ পোস্ট দেখুনঃ
পোস্টটি পড়ার জন্য ধন্যবাদ। আরও কোন বিষয় আপনার জানা থাকলে বা জানতে আগ্রহী হলে কমেন্ট করুন। আর ভালো লাগলে আপনার বন্ধুদের সাথে বেশি বেশি শেয়ার করুন।
Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url

as