google.com, pub-8571279523475240, DIRECT, f08c47fec0942fa0 Freelancers IT | Learn More About Freelancing and Outsourcing

sfd

১৩টি অসাধারণ এফলিয়েট মার্কেটিং টুলস

 আপনি সবেমাত্র ব্লগিং শুরু করেছেন কিংবা এক্সপেরিয়েন্স একজন ব্লগার কিন্তু নতুনভাবে এফলিয়েট মার্কেটিং শুরু করতে চাচ্ছেন। কি কি করলে আপনার ক্ষতি ছাড়াই সাফল্যমণ্ডিতভাবে এফলিয়েট মার্কেটিং করতে পারবেন তা নিয়ে আর চিন্তা নেই। আজকের আর্টিকেলটিতে এমন ১৩টি টুলসের ব্যাপারে জানাবো যা দিয়ে আপনি অবশ্যই সফল হতে পারবেন। 

তাই ১৩টি অসাধারণ এফলিয়েট মার্কেটিং টুলস সম্পর্কে জানতে আর্টিকেলটি শেষ পর্যন্ত পড়ার অনুরোধ রইলো।


১৩টি অসাধারণ এফলিয়েট মার্কেটিং টুলস

ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন 

প্রথম জিনিস সর্বদা প্রথমে। আপনাকে অবশ্যই ডোমেইন নাম রেজিস্টার করা লাগবে যা আপনার ওয়েবসাইটের ঠিকানা হিসেবে কাজে লাগবে। অনেকেই মনে করতে পারেন এফলিয়েট মার্কেটিং এ ডোমেইন নাম লাগে নাকি,তবে ব্র‍্যান্ডেড মার্কেটিং করতে হলে অবশ্যই ডোমেইন নাম রাখা উচিত।

১.নেইমচিপ (NameCheap)


যেভাবে মূলত ডোমেইন নাম রেজিষ্ট্রেশন করা হয় এরাও ঠিক একইভাবে কাজ করে থাকে। এরা আপনাকে মালিকানা প্রদান করবে আপনার স্বতন্ত্র ডোমেইন নাম এর। আমার মতে, ডোমেইন নামের জন্য "নেইমচিপ"।

এখানে স্বতন্ত্র ".com"ডোমেনের মূল্য $৮.৮৮ প্রতি বছরে। আপনি যদি আলাদা এক্সটেনশন ব্যবহার করেন যেমনঃ ". biz" or ".me" তাহলে আপনার মূল্য কমাতে পারবেন তা হয়ে যাবে $৪.৮৮ বা তারো কম।

ওয়েব হোস্টিং

ডোমেইন নাম কেনার পরে অবশ্যই পরবর্তী কাজ হবে এই স্বতন্ত্র নামটিকে একটি সার্ভারের মাধ্যমে হোস্টিং করা।আর এই স্বতন্ত্র নামটি যাতে ভালোভাবে থাকতে পারে এর জন্য ভালো ওয়েব হোস্টিং হলোঃ

২. সাইটগ্রাউন্ড (SiteGround)


সাইটগ্রাউন্ড মূলত একটি স্বনামধন্য ওয়েব হোস্টিং প্লাটফর্ম যার মধ্যে অসংখ্যা ফরাম,গ্রুপ লিপিবদ্ধ আছে। তারা তাদের অসাধারণ গ্রাহক সুবিধা,সহজ মাইগ্রেশন সিস্টেম এবং কম মূল্য ভালো হোস্টিং প্ল্যানের জন্য সুনাম আছে। এদের নিজস্ব এক্সটেনশন আছে যা দিয়ে সহজে অপটিমাইজ করা যায় বলে কাজে দ্রুততা থাকে।

ওয়েবসাইট বিল্ডিং

আপনি একটি অসাধারণ ওয়েবসাইট তৈরি করতে চান কিন্তু কোডিংয়ের ব্যাপারে কোনো জ্ঞান নেই তবে পেইজ বিল্ডারের সহায়তা নিন।

৩. এলেমেন্টর (Elementor)


মূলত আমি নিজেই এলিমেন্টর ব্যবহার করি তাই আপনাদের এটার জন্য সাজেস্ট করলাম।এটা মূলত খুব দ্রুত এবং অসংখ্যা ফিচার সমৃদ্ধ তাই সুন্দরমত ওয়েব ডিজাইন তৈরি করা যায় এতো ডিজাইনের থেকে। এলেমেন্টর এছাড়াও একটি লম্বা তালিকা প্রদান করে টেমপ্লেটের প্রতিটির আলাদা শাখা অনুযায়ী। আর বড় সুবিধা প্রতিটা ডিজাইন কাস্টমাইজ করা যায়।

৪. জেনারেটপ্রেস (GeneratePress)


জেনারেটপ্রেস মূলত একটি এলেমেন্টারি ওয়ার্ডপ্রেস থিম। বর্তমানে সেটা ওয়ার্ডপ্রেস থিমের মধ্যে জেনারেটপ্রেস হচ্ছে অন্যতম। এটির বৈশিষ্ট্য এর হালভাবের সবকিছু যার ফলে চলে খুব দ্রুত,স্ট্যাবেল এবং এলেমেন্টারের সাথে ভালোভাবে বসে যেতে পারে। এর মাধ্যমে আপনি নিজেই বিল্ট-ইন কাস্টমাইজেশনের মাধ্যমে নিজের ওয়েবসাইট বানাতে পারবেন আর সাথে কথা এর লেআউট,শাখা,টাইপোগ্রাফি,রঙ আরো অনেক কিছু।

কন্টেন্ট ক্রিয়েশন

একটি ওয়েবসাইট ততোক্ষন পর্যন্ত ওয়েবসাইট হিসেবে গণনা করা হবেনা যতোক্ষন না অবদি এটায় কোয়ালিটি কন্টেন্ট থাকবে। কোয়ালিটি কন্টেন্ট ভিজিটরকে আকৃষ্ট করে। আর একটি স্বাচ্ছন্দ্যেময় কন্টেন্ট ক্রিয়েটের জন্য দরকার প্রুফরিডিং টুল।

৫. গ্রামারলি (Grammerly)


আমাদের ওয়েবসাইটে প্রুফরিডিং টুল নিয়ে আগেও পোস্ট হয়েছে। আর সব জায়গায় গ্রামারলিকে ধরা হয়েছে সেরা। তাই আপনি আপনার কন্টেন্ট ক্রিয়েশন এর জন্য প্রুফরিডিং টুলস দিয়ে সংশোধন করে পোস্ট করলে দেখত সুন্দর লাগবে। আপনি যদি দলগত প্রক্রিয়ায় থাকেন তবে গ্রামারলি প্লেগারিজম এর মাধ্যমে তা সংশোধন করতে সক্ষম।

লিড জেনারেশন

চৌকস বিপণনদাতারা জানেন যে কোনো ক্রেতা প্রথম দেখাতেই পন্য ক্রয় করেন না।তাই পন্য প্রথমেই বিক্রি করার থেকে আগে তাদের বিশ্বাস আর বায়ারের কনফিডেন্স জেতাটা উচিত।

৬. কনভার্টবক্স (ConvertBox)


কনভার্টবক্স একটি স্বাচ্ছন্দ্যে কাজ করার টুলস। এতে রয়েছে ডেশবোর্ড যা বিনামূল্য সেবা দিয়ে থাকে এবং এতে অনেক ধরণের ফিচার আছে যা সাহায্য করবে আপনার ব্লগ ওয়েবসাইটটিকে লিড জেনারেশন মেশিন বানানোর জন্য। আর এটি খুব ফ্রেন্ডলি একটি টুলস তাই কাস্টমাইজের মতো বিভিন্ন কাজের মাধ্যমে নিজের মতো করে সাজাতে পারবেন।

ই-মেইল মার্কেটিং

নেতৃত্বটাকে ধরে রাখতে আর স্ট্র‍্যাটিজিক এই দুনিয়ায় টিকে থাকতে সবাই তাদের সাবক্রাইবারদের টাকা প্রদানে উৎসাহিত করছেন। আর এটা করার অনেকে ব্যবহার করছে ই-মেইল মার্কেটিং।

৭. একটিভক্যাম্পেইন (ActiveCampaign)

একটিভক্যাম্পেইন মূলত একটি বিস্তৃত ই-মেইল মার্কেটিং সেবা যাতে আপনি সব ধরণের সেবা পাবেন। সাধারণত এর মধ্যে ড্রাগ এবং ড্রপ নামের একটি ই-মেইল বিল্ডার আছে যা অনেকটা পেইজ বিল্ডারের মতো। যার ফলে আপনি চাইলে আপনার ই-মেইল গুলোকে সংযুক্ত,ড্রাগ এবং ড্রপ করতে পারেন আপনার ই-মেইল ড্রাফটে। 

আর মজার ব্যাপার হচ্ছে একটিভক্যাম্পেইন এর প্রবেশের মূল্য মাত্র $৯ প্রতি মাসে। তাই খুব ভালোভাবেই এটি ব্যবহার করতে পারবেন।

এফলিয়েট মার্কেটিং সার্ভিস

এতোক্ষনে যেহেতু একটু ওয়েবসাইট তৈরি করা হয়ে গেছে। তাই এখন আসল কাজ হচ্ছে এফলিয়েট মার্কেটিং নেটওয়ার্কের সাথে সংযুক্ত হওয়া। তা হলোঃ

৮.এএডব্লিউপি (AAWP)

AAWP মূলত বুঝায় "এমাজন এফলিয়েট ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগ-ইন"। এটা ওয়ার্ডপ্রেসের একটি প্লাগ-ইন যা দ্বারা এমাজন এফলিয়েট ব্যবসা করা যায় পন্য বিক্রয়ের জন্য। এর বেশিরভাগ ফিচার কাস্টমাইজ করা যায়  এবং বিভিন্ন ফিচার থাকায় খুব সহজে এটি ব্যবহার করা যায়।

মাস্টার এফলিয়েট মার্কেটিং

একটি ভালো এফলিয়েট মার্কেটিং সাফল্যর জন্য কেউ গ্যারান্টি দিতে পারছেনা! খুব চিন্তায় আছেন কীভাবে শিখবেন আর সফল হবেন কীভাবে সেটাই শুধু ভাবনা! তাই এইসবের মধ্যে এক পয়সা খরচ করবার পূর্বে অনেক খোঁজাখুঁজি করা বাধ্যতামূলক। আর তা যদি এমন হয় একজন মাস্টার এফলিয়েট মার্কেটিং এর আদলে থেকে এফলিয়েট মার্কেটিং শেখা যায় কেমন হবে! অবশ্যই ভালো! তার জন্য নিচের টুলসগুলি দেয়া হলো।নিন্মেঃ

৯.এফলিফট (AffLift)

এফলিফট মূলত এমন একটি কমিউনিটি যা সব মার্কেটারদের সাহায্যের অপর নাম। আপনি এখানে গভীরের তথ্য,সঠিক দিকনির্দেশনাসহ আরো অন্যান্য সেবা পেতে পারবেন। ফ্রি মেম্বাররা শুধুমাত্র ১০০টি ব্যাপারে সাহায্য গ্রহণ করার অনুমতি পান। তবে এর বেশি পেতে চাইলে মাসিক $২০ দিয়ে প্রিমিয়াম মেম্বারশিপ কেনা লাগবে।

লিংকট্র‍্যাকিং

আপনি জানতে চান কীভাবে এফলিয়েট মার্কেটাররা এতো সফল হয়! কারণ তারা শুধুমাত্র বিজ্ঞাপন বা লিংক এভাবেই রেখে দেননা বরং প্রত্যেকদিন নজরদারি রাখে। তাই সেক্ষেত্রে প্রযোজ্য টুলস হলোঃ

১০. ক্লিকম্যাজিক (ClickMagick)


এটি একটি অসাধারণ টুলস যা দিয়ে খুব সহজেই প্রত্যেকটি লিংককে ট্র‍্যাক করে থাকে। এর ফিচারে আছে ক্রস ডিভাইস ট্র‍্যাকিং,অত্যাধুনিক স্পিল্ট টেস্টিং,রিয়েল টাইম রিপোর্ট ইত্যাদি। এর মাধ্যমে আপনি সবসময় নজর রাখার মাধ্যমে বুঝতে পারবেন কোথায়,কীভাবে পরিবর্তন আনলে আপনার আয় বৃদ্ধি পাবে।

সোলো বিজ্ঞাপন (Solo Advertising)

অনেক ব্লগার এই সোলো বিজ্ঞাপনের সাথে জানাশোনা নেই। তাই এটা আজ এখানে নেয়া হয়েছে। এটির কাজ হচ্ছে মূলত প্রত্যেকজন ব্যাক্তির স্বতন্ত্র ই-মেইলে বার্তা পাঠিয়ে সকলকে ই-মেইল মার্কেটিং এর মাধ্যমে গ্রাহক জোগাড় করে। আর সেইক্ষেত্রে সাহায্য করতে পারেঃ

১১. উডিমি (Udimi)

উডিমি একটি বিশ্বাসযোগ্য বিজ্ঞাপন প্লাটফর্ম যা মূলত সোলো বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে ক্রেতা এবং বিক্রেতাকে কাছে আনে। এটির ফিল্টারিং সিস্টেম অনেক ভালো। আপনি আপনার ক্যাম্পেইন এর জন্য যতোগুলা ক্লিক দরকার ততোগুলাই নির্দিষ্ট করে দিতে পারবেন তাই বিফল হবার চান্স নেই। তাই অনায়াসে ক্রয় করে বিস্তৃত ঘটানো যায়।

সামাজিক মাধ্যমে বিপণন (Social Media Marketing)

অনেক ব্লগাররা ইনস্টাগ্রাম এবং পিন্টারেস্ট এর সামাজিক মাধ্যমের বিপণনটাকে পাত্তা দেয়না। কিন্তু বাস্তবে এই ব্যবসা অনেক কাজে আসে যা পরবর্তীতে বড় আকার ধারণ করে।তাই এইকাজের জন্য হলোঃ

১২. টেইলওয়াইন্ড (TailWind)

টেইলওয়াইন্ড মূলত এমন একটি বিপণন টুলস যা মূলত ইনস্টাগ্রাম এবং পিন্টারেস্ট এর জন্যই বানানো হয়েছে। এই প্লাটফর্মটি তখনি আপনার পোস্টটি শেয়ার করবে যখন আপনার অডিয়েন্স তা দেখতে পারবে। এটি দুইটিভাবে এসে থাকে ১.ট্রাইবস এবং ২. স্মার্টলুপ।

ট্রাইবস মূলত আপনাকে সেসব ইনফ্লুয়েন্সারদের সাথে সংযুক্ত করবে যারা কিনা আপনার প্রোডাক্টের বেস্ট দাম এবং ফ্রেশ কন্টেন্ট প্রদান করে সাহায্য করবে।স্মার্টলুপ মূলত আপনাকে চিরসবুজের মূল্য দিবে আপনার কন্টেন্টকে রিশেয়ার স্মার্ট ফিচারের মাধ্যমে।

এসইও এবং বিশ্লেষণ (SEO and Analystics)

সর্বশেষে, আপনাকে আপনার ওয়েবসাইটের একটি ৩৬০° ভিউ তৈরি করতে হবে যাত পারফর্মেন্স ডাটাকে দেখা যায় আপনাত এফলিয়েট মার্কেটিং ব্যবসায়ের। এড এবং লিংক ট্র‍্যাক করলেই হয়না বরং আপনার ওয়েবসাইটের কিওয়ার্ড, অডিয়েন্স ইত্যাদির ও খেয়াল রাখাটা বাধ্যতামূলক। 

১৩. এসইএমরাশ (SEMrush)

একটি কিওয়ার্ড রিসার্চ টুলস দরকার যা আপনার ওয়েবসাইটের প্রতিযোগিতামূলক বাজারের সাথে তাল মেলাতে সাহায্য করবে। তার জন্য আছে এসইএমরাশ নামক টুল যা দিয়ে আপনি খুব সহজে সকল মার্কেটিং সাইটে নজর রাখতে পারবেন একদম ঈগল পাখির ন্যয়। আর তা করতে পারবেন খুব সহজেই।

আপনি চাইলে ব্যাকলিংক,ইনডেক্স,কিওয়ার্ড, ডোমেইন রেফার করাসহ সকল সেবা যা একজন মার্কেটিং সেভি ব্লগারের দরকার তা সব পাবেন। আরো দরকারী কথা হলো আপনি চাইলেই খুব সহজে এটিকে আপনার প্রতিদ্বন্দ্বীর ডিভাইসে ব্যবহার করে তার স্ট্র‍্যাটিজি সম্পর্কে জানতে পারবেন যা আপনার জন্য অনেক লাভজনক হবে।

এই প্রত্যেকটি টুলস ভালোভাবে ব্যবহার করলে খুব সহজে আর ভালোভাবে আশা করা যায় আপনি এফলিয়েট মার্কেটিং করতে পারবেন। আর সফলতা অবশ্যই আসবে ইনশাআল্লাহ।

আজ আর্টিকেলটি এই পর্যন্তই। আশা করি পোস্টটি আলহামদুলিল্লাহ ভালো লাগবে। ধন্যবাদ

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url

as